Home / অন্যান্য / যে ৮টি লক্ষণ স’ঙ্গীর মধ্যে দেখলে বিয়ে করবেন

যে ৮টি লক্ষণ স’ঙ্গীর মধ্যে দেখলে বিয়ে করবেন

মনের মানুষটিকে সারাজীবনের জন্য জীবনস’ঙ্গী হিসেবে পাওয়া মত আ’নন্দ আর নেই।

ভালোবেসে বিয়ে করে একস’ঙ্গে সারাজীবন কা’টানোর গল্প অনেক শোনা যায়।এমন রোমান্টিক গল্প শুনে অনেকের হৃদয়পটে ভেসে আসে প্রে’মিকার অবয়ব।

সে আপনার জীবনস’ঙ্গী হবে কি-না, আনার প্রতি যত্নবান কি-না, আপনার পরিবারকে সম্মান করে কি-না অথবা আপনার পাশে সবসময় থাকবে কি-না এমন অনেক প্রশ্ন-ও আসতে পারে আপনার মনে।

প্রে’মিকাকে বিয়ে করার কথা ভাবতে যদি আপনার মনে এ প্রশ্নগুলো আসে আর সেগুলোর ইতিবাচক উত্তর যদি আপনি পান, তাহলে সে প্রে’মিকাকে আপনি বিয়ে ক’রতে পারেন।

জীবনধারা ও স্বা’স্থ্যবি’ষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাই-এর এক প্র’তিবেদনে এমন কিছু লক্ষণের কথা উল্লেখ করা হয়েছে যা দেখলে বিয়ের সিদ্ধা’ন্ত নেওয়ার প’রামর্শ দেওয়া হয়েছে। আসুন জে’নে নিই সেই স’স্পর্কে-

১. সাপোর্ট দেয়া-প্রে’মিকা যদি আপনার সামর্থ্যের ও’পর আস্থা রেখে আপনাকে অনেক ভালোবাসে তাহলে অবশ্যই তাকে বিয়ে ক’রতে পারেন।

যখন কেউ আপনার সমর্থনে না থেকে আপনাকে ব্য’র্থ ভাবে, কিন্তু আপনার প্রে’মিকা আপনাকে সাপোর্ট দিচ্ছে তাহলে তাকেই আপনার জীবনস’ঙ্গী হিসেবে বেছে নেওয়া উচিৎ। সে আপনার জীবনের লক্ষ্য অর্জন ক’রতে সহায়ক হিসেবে কাজ করবে।

২. আস্থা রাখা-প্রতিটি স’স্পর্কেই একে অপরের প্রতি আস্থা রাখা জ’রুরি। এর ভিত্তিতেই নির্ভর করে স’স্পর্কের মূ’ল শ’ক্তি। আপনার প্রে’মিকা আপনাকে বিশ্বা’স করে, আপনার ও’পর আস্থা রেখে এটা মানে যে আপনিই তার সব, তাহলে তাকেই আপনার বিয়ে করা উচিৎ।

৩. প্রশংসা করে ও উৎসাহ দেয়-প্রে’মিকা আপনার প্রচেষ্টার মূ’ল্যায়ন করে যদি স্বাগত জা’নায় এবং আপনাকে উৎসাহ দেয় তাহলে তাকে জীবনস’ঙ্গী করা উচিৎ আপনার। এমন প্রে’মিকা বিশ্বা’স করে যে আপনি উজ্জ্বল ভবি’ষ্যতের জন্য ক’ঠোর পরিশ্রমই করছেন, স’স্পর্ককে আরও শ’ক্তিশালী ক’রতে সর্বো’চ্চ চেষ্টা করছেন। তাই সে আপনার প্রচেষ্টার ব্যাপারে কখনও অ’ভিযোগ না করে আপনাকে সাপোর্ট করবে এবং আপনার জীবনের লক্ষ অর্যনে ভূমিকা রাখবে।

৪. আপনার ব’ন্ধুকেও ব’ন্ধু মনে করা-আপনার ব’ন্ধুমহলকে যদি আপনার স’ঙ্গী চেনে ও তাদের স’ঙ্গে যদি প্রে’মিকাও ভালো আচরন করে তাহলে সেই প্রে’মিকাকে আপনি বিয়ে ক’রতে পারেন। আপনার ব’ন্ধুমহলে করা কিছু পাগ’লামির বিচার না করে মেনে নিলে তাকে আপান জীবনস’ঙ্গী ক’রতে পারেন।

৫. যত্নবান-প্রে’মিকা যদি আপনার প্রতি, আপনার স্বা’স্থ্যের প্রতি যত্নবান থাকে তাঞলে তাকে আপনি বিয়ে ক’রতে পারেন। একজন যত্নশীল প্রে’মিকা সারাজীবন আপনার ভালোথাকার পেছনে ভূমিকা পা’লন করবে এবং আপনাকে হাসিখুশি রাখার চেষ্টা করবে। আপনার ভালোলা’গা-খা’রাপলা’গা স’স্পর্কে যেনে সেভাবেই আপনাকে খুসি ক’রতে সহায়ক হিসেবে ভূমিকা পা’লন করবে।

৬. ভবি’ষ্যতের স্বপ্ন দেখা-প্রে’মিকা যদি আপনাকে নিয়ে তার কোন ভবি’ষ্যৎ প’রিকল্পনার কথা ভাবে তাহলে তাকে আপনি বিয়ে ক’রতে পারেন। এমনটা হলে বুঝবেন য়ে সে সবসময় তার পাশে আপনাকে চায় এবং নিজেকেও আপনার পশে রাখতে চায়। এমন প্রে’মিকারা আপনারা একটি সুন্দর ও সু’খী জীবন দিতে চায় এবং সেরকম স্বপ্ন দেখে।

৭. আপনার পরিবারকে ভালোবাসে-সঠিক প্রে’মিকার অন্যতম গুন থাকবে যে সে আপনার পরিবারের সদস্যদের পছন্দ করবে এবং তাদের যথাযথ সম্মান করবে। আপনার প্রে’মিকার মাঝে এমন গুন থাকলে তাকে অবশ্যই বিয়ে ক’রতে পারেন।

৮.আপনাকে সংশোধ’ন করাতে চাওয়া-আপনার প্রে’মিকা যদি সবসময় আপনার ভালো চেয়ে আপনাকে একজন ভালো মানুষ হিসেবে গড়তে চায় তাহলে তাকে আপনি বিয়ে ক’রতে পারেন। আপনার কোন খা’রাপ অভ্যাস থাকলে সেটি পরিত্যা’গে সাহায্য করে যদি আপনাকে ভালেঅ মানুষ হতে উৎসহ দেয় তবে তাকে হারাতে দেওয়া আপনার অনেক বড় ভু’ল হবে।

About admin

Check Also

মৎস্যকন্যা রহ’স্য, সত্যিই কি তাদের অস্তিত্ব আছে?

সাহিত্য-সিনেমা থেকে শুরু করে লোকজ সংস্কৃতিতে উপস্থিত ‘মৎসকন্যা’ নিয়ে কখনো কি ভেবেছেন? শ’রীরের উপরিভাগ না’রীর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *