Home / লাইফস্টাইল / এবার নারায়ণগঞ্জের এডিশনাল এসপিকে বদলী

এবার নারায়ণগঞ্জের এডিশনাল এসপিকে বদলী

সোনারগাঁওয়ে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাস’চিব মামুনুল হককে রিসোর্টে অ’বরুদ্ধ করার ঘ’টনার পর ওই রাতেই সোনারগাঁ থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলামকে প্রত্যাহার করে জে’লা পু’লিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়।

এবার নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পু’লিশ সুপার (অ’পরাধ) টি এম মোশাররফ হোসেনকে বদলী করা হয়েছে। অতিরিক্ত পু’লিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান

মঙ্গলবার (৬ মার্চ) দুপুরে এ ত’থ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে তিনি এই বদলীকে ‘রুটিন মোতাবেক’ বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, গত ৫ই এপ্রিল রাতে তাকে খুলনা পু’লিশ রেঞ্জে বদলি করা হয়েছে।

গত ৩রা এপ্রিল রাতে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাস’চিব মামুনুল হক সোনারগাঁয়ের একটি রিসোর্টে স্ত্রীসহ অ’বরুদ্ধ হওয়ার পর ব্যাপক ভা’ঙচুর করেন তার কর্মী-সমর্থকরা। এ ঘ’টনায় ছাত্রলীগ ও যুবলীগকে দায়ী করে রাতেই উপজে’লা

আওয়ামী লীগের কার্যালয়, উপজে’লা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম ও নারায়ণগঞ্জ জে’লা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সোহাগ রনির ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বাড়িঘরে ব্যাপক ভা’ঙচুর চালান হেফাজতের কর্মী-সমর্থকরা।

ওই দিন ঘ’টনাস্থলে গিয়ে মামুনুল হককে জি’জ্ঞাসাবাদ করেছিলেন অতিরিক্ত পু’লিশ সুপার (অ’পরাধ) টি এম মোশাররফ হোসেন। জি’জ্ঞাসাবাদ চলার মধ্যেই তাকে ছি’নিয়ে নিয়ে যান হেফাজত নেতাকর্মীরা। যদিও পু’লিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, মামুনুলকে হেফাজত নেতাকর্মীদের হাতে তুলে দেয়া হয়।

ক’রোনা পরিস্থিতি সামাল দেওয়া কঠিন হয়ে পড়ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আ’শঙ্কা প্রকাশ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, যে লকডাউনের সময় স্বাস্থ্যবিধি না মানলে দেশে ক’রোনা ভাই’রাস সং’ক্র’মণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে। পরিস্থিতি সামাল দেওয়া কঠিন হয়ে পড়ছে।

তিনি বলেন, দুই হাজারের জায়গায় যদি ৫০,০০০ মানুষ সংক্রমিত হয়ে যায় তাহলে স’রকারের পক্ষে সেটির সংকুলান করা সম্ভব হবে না।

মঙ্গলবার (৬ মার্চ) মহাখালীতে ঢাকা উত্তর সিটি করর্পোরেশনের একটি ভবনকে কভিড-১৯ চিকিৎসার জন্য ১,২০০ শয্যার হাসপাতালে রূপান্তরিত করার এক অনুষ্ঠান শেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে কভিড-১৯ চিকিৎসার জন্য স’রকারি-বেস’রকারি হাসপাতাল মিলিয়ে ৩,৫০০ শয্যা বাড়ানো হয়েছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী দাবি করেন, স’রকারি হাসপাতালগুলোতে ক’রোনা আ’ক্রান্ত রো’গীদের চিকিৎসার জন্য ২,৫০০ শয্যা দ্বিগুণ করে ৫,০০০ করা হয়েছে। শিগগিরই আরো ১,২০০ শয্যা যোগ হবে। এছাড়া বেস’রকারি হাসপাতালে ১,০০০ শয্যা আছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সবচেয়ে বড় বি’ষয় আমরা পাঁচ হাজার বেড করলাম। এরপরে তো আর এক ইঞ্চি জায়গাও নাই যেখানে আপনি আরেকটা বেড রাখতে পারবেন। তখন বেডটা কোথায় দিবো? আপনাদের বাড়ি ঘরে তো বেড নিয়া গেলে হবে না।’ তিনি বলেন, সং’ক্র’মণ কমানোর কোনো বিকল্প নেই, যাতে রো’গী না বাড়ে।

তিনি প্রশ্ন তোলেন, ‘রো’গী যদি আজকে ১০ হাজার হয়ে যায়, ২০ হাজার হয়ে যায়, কোথায় নিবেন? কোথায় চিকিৎসা করবেন? ডাক্তার কোথা থেকে পাবো? বেড বাড়ালাম, নার্স কোথা থেকে পাবো? এটা তো সম্ভব নয়।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, অনেকে লকডাউন মানতে চাচ্ছে না। ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় দোকানদাররা বি’ক্ষো’ভ ও ভা’ঙচুর করেছে। তিনি বলেন, জনগণের মঙ্গলের জন্যই লকডাউন এবং ১৮-দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আমরা যদি সং’ক্র’মণ কমাতে চাই এবং মৃ’ত্যু কমাতে চাই তাহলে লকডাউনের বিধিবিধান মানতে হবে। ১৮-দফা নির্দেশনা মানতে হবে,

মাস্ক পরতে হবে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে। তিনি বলেন, সং’ক্র’মণ কমানোর জন্য স’রকার সব ধরনের চেষ্টা করছে এবং চেষ্টার কোনো ত্রুটি নেই। ঢাকাসহ সারা দেশে ২,০০০ হাই-ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা এবং অক্সিজেন কনসেনট্রেটর দেয়া হয়েছে। তিনি দাবি করেন, এটা ব্যবস্থা আইসিইউ’র মতো কাজ করে।

About admin

Check Also

আবু ত্ব-হার মায়ের কাছে ফোন দিয়ে মুক্তিপণ দাবি

ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান ১০ জুন থেকে নিখোঁজ। সঙ্গে রয়েছেন তার সফরসঙ্গী আব্দুল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *