Home / লাইফস্টাইল / টাকা’র লো’ভে নিজের স্ত্রী’কে বিক্রি ক’রে দি’লেন স্বা’মী!

টাকা’র লো’ভে নিজের স্ত্রী’কে বিক্রি ক’রে দি’লেন স্বা’মী!

টাকার লোভে নিজে’র বিয়ে ক’রা বউকে বিক্রি ক’রে দেওয়ার ঘ’টনা ঘ’টেছে ভারতের নদিয়ার শান্তিপুরের নতুনহাটে। এ ঘ’টনায় স্বা’মী দীপ হালদারের বি’রু’দ্ধে থা’নায় অ’ভিযো’গ ক’রেছেন ভু’ক্তভো’গীর পরিবার।

পু’লিশ জা’নায়, নতুনহাটের হরিজন শেঠ এলাকার বাসিন্দা দীপ হালদার বছর দেড়েক আগে ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের রাজপুত পাড়ার বাসিন্দা টুম্পা হরিজনকে বিয়ে ক’রেন। তাদের মধ্যে প্রেমের স’স্পর্ক ছিল। টুম্পার আ’ত্মীয়দের দা’বি, দীপ বিয়ের

কিছুদিনের মধ্যেই টুম্পাকে নতুন সংসার বাঁ’ধার স্বপ্ন দেখিয়ে শিলিগুড়িতে তার দিদির বাড়িতে নিয়ে যায়। তাদের অ’ভিযো’গ, পেশায় বার ড্যান্সার দিদির স’ঙ্গে ছক ক’ষে টাকার লোভে দীপ স্ত্রী টুম্পাকে বিক্রি ক’রে দেয়। টুম্পার আত্মীয়দের আরও অভি’যোগ,

বিগত দেড় বছরের মধ্যে দীপ বহুবার শ্ব’শুরবাড়ি থেকে টাকা আ’দা’য় ক’রেছে। টাকা না দিলে সে টুম্পার ও’পর শা’রী’রিক এবং মান’সিক নি-র্যা’তন চালাতো। টাকা না দিলে সে মেয়েকে বিক্রি ক’রে দেওয়ার ‘হু”ম’কি দিয়েছিল বলে দা’বি টুম্পার বাড়ির লোকজনের।

টুম্পার আত্মীয়দের বক্তব্য, শুক্রবার টুম্পাকে ছাড়াই বাড়ি ফেরে দীপ। এরপরই শুরু হয় তার খোঁ’জ। শিলিগুড়িতে দীপের দিদির বাড়িতেও যান টুম্পার আত্মীয়রা। কিন্তু সেখানেও তার কোনো খোঁ’জ মেলেনি। এর পরশান্তিপুরে দীপের বি’রু’দ্ধে থা’নায় অভি’যোগ দা’য়ের ক’রা হয়। সূত্র: আ’নন্দবাজার।

‘মায়ের দোয়া আমাকে কাবা শরীফের ইমাম বানিয়েছে

মায়ের দু‘আ আমাকে কাবা শরীফের ইমাম বানিয়েছে লন্ডনের এক কনফারেন্সে পবিত্র কাবা শরীফের এক ইমাম আল কালবানি এই কাহিনী বর্ণনা করেন। এতে তিনি তার জীবনের একটি বাস্তবতা তুলে ধরেন।

তিনি জানান, তার উপর কোনো কারণে রেগে গিয়ে তার মা আল্লাহর কাছে যে দু‘আ করেছিলেন তাই তার জীবনে সত্যে পরিণত হয়েছে।

ইমাম আল কালবানি বললেন, ‘আল্লাহ তার দু‘আ কবুল করেছেন এবং আমি আজ কাবার ইমাম। কালো মানুষ শাইখ আদিল আল কালবানি পারস্য উপসাগরীয় এক দরিদ্র পরিবারের স’ন্তান।

নিউইয়র্ক টাইমস-এর স’ঙ্গে এক সাক্ষাতকারে শাইখ কালবানি বলেছেন, মসজিদুল হারামের নামাজের ইমামতি করা অ’সাধারণ সম্মানের, আর এই কাজ শুধুমাত্র আরব ভূখণ্ডের আরবদের জন্যই নির্ধারিত। ইমাম বলেন, যখন আপনার স’ন্তান খা’রাপ আচরণ করবে তখন তাকে গালমন্দ করবেন না।

এতে বিপর্যয় ঘটতে পারে। আমি একজনকে জানি যিনি তার ছেলেকে বলেছিলেন— যাও মর’, অতঃপর তিনি সেটার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন, যখন সেই দিনই তার ছেলে মা’রা যায়। সুবহানআল্লাহ!

প্রিয় স’ন্তানের পিতা ও মাতাগণ! আপনাদের ভাষা সংবরণ করুন। আপনার ছেলে-মেয়েদের জন্য ভাল দু‘আ করার অভ্যাস তৈরি করুন, এমনকি যখন আপনি অনেক রেগে যান তখনও তার জন্য দু‘আ করুন।

মায়ের দু‘আ আমাকে কাবা শরীফের ইমাম বানিয়েছে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, তিনটি দুআ আল্লাহ কখনও প্র’ত্যাখ্যান করেন না, ছেলেমেয়েদের জন্য তার পিতামাতার দু‘আ, রোজাদারের দুআ এবং মুসাফিরের দু‘আ। (বায়হাকী, তিরমিযী, হাদীসটি সহীহ সূত্রে বর্ণিত)

যারা এই ম্যাসেজ অন্যদেরকে জানাবেন তাদের জন্য আমি আল্লাহর কাছে দু‘আ করি, বিচার দিবসে এটা দিয়ে তিনি যেন উপকৃত হন অথবা এটা তার মুক্তির কারণ হয়।

About admin

Check Also

আবু ত্ব-হার মায়ের কাছে ফোন দিয়ে মুক্তিপণ দাবি

ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান ১০ জুন থেকে নিখোঁজ। সঙ্গে রয়েছেন তার সফরসঙ্গী আব্দুল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *