Home / লাইফস্টাইল / নামাজ-রোজা আর কোরআন আমাকে বাজে চিন্তা থেকে দূরে রাখছে: ক্রিকেটার জাহা’নারা

নামাজ-রোজা আর কোরআন আমাকে বাজে চিন্তা থেকে দূরে রাখছে: ক্রিকেটার জাহা’নারা

বাংলাদেশ না’রী জাতীয় ক্রিকেট দলের নির্ভরযোগ্য বোলার জাহা’নারা আলম।

বৈশ্বিক ম’হামা’রি ক’রোনা ভাই’রাসের কারণে সব ধরনের ক্রিকেট স্থগিত থাকায় আপাতত গৃহব’ন্দী জীবন কাটছে তার।

ক’রোনার সময় ক্রিকেটাররা কিভাবে জীবনযাপন করছেন,

লকডাউনের সময় কিভাবে তাদের রুটিন মাফিক কাজ ও জীবন ক্ষ’তিগ্রস্থ হচ্ছে তা নিয়ে জনপ্রিয় ক্রীড়া মাধ্যম ইএসপি এনক্রিকইনফো

‘ডাউনটাইম ডায়েরিস’ নামে এক সিরিজ সাক্ষাৎকার নিচ্ছে ক্রিকেটারদের। এবার তারা সাক্ষাৎকার নিয়েছেন জাহা’নারার।

শুরুতেই ইএসপিএনক্রিকইনফো ২৭ বছর ব’য়সী তারকার কাছে প্রশ্ন রেখেছিল, ‘সীমবদ্ধতার মাঝে কোন ধরনের অসুবিধা হচ্ছে কিনা। উত্তরে জাহা’নারা বলেন, ‘লকডাউনের শুরুতে, সারাদিন ঘরে থাকতে হবে বলে আমি খুব চা’পে ছিলাম।

কিন্তু সাধারণত আমি খুব সুশৃঙ্খল জীবনযাপন করি। বেশিরভাগ সময় খেলা থাকার কারণে গত বছর রোজা রাখতে পারিনি। এবার পরিকল্পনা করেছি, নিয়মিত সব রোজা রাখার, নামাজ এবং কোরআন পাঠ করার। এসব পালন আমাকে খা’রাপ চিন্তা থেকে দূরে রাখে।’

খেলা না থাকলেও নিজেকে কিভাবে ফি’ট রাখছেন, সে প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশি বোলার আরও বলেন, ‘রমজানের আগে, দুইদিনে আমি একবার ব্যয়াম করতাম,

যেহেতু আমার বাড়িতে ব্যয়ামের উপকরণ নেই তাই সিঁড়ি বেয়ে ওঠা, বডি-পুশ ওয়ার্ক এসব করছি। এখন আমি তিনদিনে একবার অল্প সময়ের জন্য ব্যয়াম করি। যাতে দু’র্বল হয়ে না পড়ি।’

আফ্রিদির জামাই হচ্ছেন আরেক আফ্রিদি!

বছর তিনেক আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকে’টে পা রাখার পরই নামের মিলের কারণে খোঁজ করা হয়েছিল,পাকিস্তানের কিংবদন্তি অলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদির স’ঙ্গে কি কোনো আত্মীয়তার সম্প’র্ক রয়েছে তরুণ বাঁহাতি পেসার শাহিন আফ্রিদির? তখন উত্তর ছিল, ‘না!’

তবে অচিরেই এই ‘না’কে ‘হ্যাঁ’তে পরিণত করার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে চলেছে শহিদ আফ্রিদি ও শাহিন আফ্রিদির পরিবার। দুই বছরের মধ্যে শহিদ আফ্রিদির বড় মে’য়ে আকসা আফ্রিদিকে বিয়ে করবেন তরুণ পেসার শাহিন আফ্রিদি।

শনিবার সন্ধ্যায় এ খবর চাউর হলে হইচই পড়ে যায় চারিদিকে। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমগুলো নিশ্চিত করেছে, এটা স্রেফ গুঞ্জন নয়। শাহিন আফ্রিদির বাবা আয়াজ খান নিজে নিশ্চিত করেছেন শহিদ আফ্রিদির মে’য়ের স’ঙ্গে তার ছেলের বিয়ের কথা।

আয়াজ খান সংবাদমাধ্যমে বলেছেন, দুই পরিবারের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্প’র্ক অনেক পুরোনো। আমাদের পক্ষ থেকে বিয়ের প্রস্তাবটা দেয়া হয়েছিল। শহিদ আফ্রিদির পরিবার এতে রাজি হয়েছে। শিগগিরই বাগদান অনুষ্ঠান সেরে ফেলা হবে।

তবে এ খবরটি মূ’লত সবার আগে প্রচার করেছিলেন এক পাকিস্তানি সাংবাদিক। যিনি টুইটারে লেখেন, ‘দুই পরিবারের অনুমতি নিয়েই আমি শাহিন আফ্রিদি ও শহিদ আফ্রিদির মে’য়ের বিয়ে সম্প’র্কিত গুঞ্জনটি পরিষ্কার করতে চাই। বিয়ের প্রস্তাবে রাজি হয়েছে শহিদ আফ্রিদির পরিবার।’

এখনই যে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হবে না, সেটিও জানিয়েছেন ইহতিশাম উল হক নামের ঐ সাংবাদিক। তিনি লিখেছেন, ‘আপাতত আনুষ্ঠানিকভাবে বাগদান সেরে রাখা হবে। পরে দুই বছর পর মে’য়ের পড়ালেখা শেষ হলে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা।’

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহিদ আফ্রিদি পাঁচ স’ন্তানের জনক। তার পাঁচ মে’য়ের নাম হলো আকসা, আনসা, আজওয়া, আসমা’রা ও আরওয়া। এদের মধ্যে ২০ বছর ব’য়সী আকসা সবার বড়। তিনিই শাহিন আফ্রিদির স্ত্রী হতে চলেছেন।

এদিকে শাহিন আফ্রিদির ব’য়সও ২০। তিনি ২০১৮ সালের এপ্রিলে টি-টোয়েন্টি খেলার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ক্রিকে’টে নাম লেখান। একই বছরের ডিসেম্বরে সুযোগ পান টেস্ট ক্রিকে’টেও। এখনও পর্যন্ত আন্তর্জাতিক অ’ঙ্গনে ৫৮ ম্যাচে ১১৭ উইকেট শি’কার করেছেন শাহিন।

About admin

Check Also

আবু ত্ব-হার মায়ের কাছে ফোন দিয়ে মুক্তিপণ দাবি

ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান ১০ জুন থেকে নিখোঁজ। সঙ্গে রয়েছেন তার সফরসঙ্গী আব্দুল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *