Home / লাইফস্টাইল / মামুনুলের বিয়ে বৈধ, দাবি হেফাজত নেতাদের

মামুনুলের বিয়ে বৈধ, দাবি হেফাজত নেতাদের

হেফাজত ইসলামের যুগ্ম মহাস’চিব মামুনুল হকের দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে বেশ আলোচনা ও সমালোচনা চলছে। এরই মধ্যে এ নিয়ে ঢাকাস্থ কেন্দ্রীয় কমিটির শীর্ষ নেতৃবৃন্দ বৈঠক করেছে।

সেখানে তারা বলেছেন, ‘মাওলানা মামুনুল হক গত ৩ এপ্রিল তার স্ত্রী’কে নিয়ে সোনারগাঁও রির্সোটে গিয়েছিলেন। ইসলামী শরিয়তের আলোকে তার বিবাহ পরিপূর্ণ শুদ্ধ মর্মে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। এ নিয়ে বিভ্রাতির কোনো অবকাশ নেই।

সোমবার দুপুরে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের ঢাকাস্থ কেন্দ্রীয় কমিটির শীর্ষ নেতৃবৃন্দের জরুরি বৈঠক জামিয়া রাহমানিয়ায় অনুষ্ঠিত হয়। নায়েবে আমীর মাওলানা আব্দুল হামিদ পীর সাহেব মধুপুরীর সভাপতিত্ব করেন এই সভার। সভায় নেতৃবৃন্দ বলেছেন, দেশের যে কোনো নাগরিক তার স্ত্রী-পরিবার নিয়ে যেকোনো স্থানে যাওয়ার অধিকার রাখে।

কিন্তু মাওলানা মামুনুল হকের মতো পরিচিত ও সম্মানিত ব্যক্তির ও’পর স’ন্ত্রাসীরা যেভাবে ঝাপিয়ে পড়েছে, আমরা তার তীব্র নি’ন্দা জ্ঞাপন করছি এবং অ’ভিযুক্তদেরকে বিচারের আওতায় আনার জো’র দাবি জানাচ্ছি।

সভায় উপস্থিত ছিলেন হেফাজতে ইসলামের মহাস’চিব মাওলানা নুরুল ইসলাম, উপদেষ্টা মাওলানা আবুল কালাম, নায়েবে আমির মাওলানা আব্দুল আউয়াল, মাওলানা মাহফুজুল হক, অধ্যাপক আহম’দ আব্দুল কাদের,

মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, যুগ্ম মহাস’চিব মাওলানা জুনায়েদ আল হাবিব, মাওলানা মামুনুল হক, মাওলানা ফজলুল করিম কাসেমী, মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবী, সহকারী মহাস’চিব মাওলানা খুরশিদ আলম কাসেমী, মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, মাওলানা হাসান জামিল, মাওলানা জসিমউদ্দীন, মাওলানা সাখাওয়াত হোসাইন রাজী, মাওলানা মুসা বিন ইজহার,

অর্থ সম্পাদক মাওলানা মুনির হোসাইন কাসেমী, ঢাকা মহানগর সহ-সভাপতি মাওলানা আহম’দ আলী কাসেমী, কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আতাউল্লাহ আমিন, সহ-প্রচার সম্পাদক ফয়সাল আহম’দ, সহ-অর্থ সম্পাদক মাওলানা জাকির হোসাইন কাসেমী,

সহকারী সমাজকল্যাণ সম্পাদক মাওলানা গাজী ইয়াকুব, ঢাকা মহানগর সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুর রহমান হেলাল, মাওলানা ফজলুর রহমান প্রমুখ।

তারা আরও বলেন, জাতীয় সং’সদে একজন নাগরিকের ব্যক্তিগত বি’ষয়কে যেভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে, এটা জনগণ কখনোই আশা করেনি। আমরা এ বক্তব্য প্রত্যাহার করার আহ্বান জানাই।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেছেন, গত ২৬, ২৭, ২৮ মার্চ বাইতুল মুকাররম, হাটহাজারী, বি-বাড়িয়া, মুন্সিগঞ্জসহ সারা দেশে হেফাজতকর্মী ও প্রতিবা’দী মানুষের ও’পর হা’মলা করা হয়েছে।

বি-বাড়িয়া ও হাটহাজারীতে ২০ জন শাহাদাৎ বরণ করেছে। এসব হ’ত্যাকাণ্ড ও হা’মলার বি’ষয়ে বিভাগীয় ত’দন্তের মাধ্যমে দোষীদেরকে শা’স্তির আওতায় আনতে হবে। সারা দেশের বিভিন্ন স্থানে আমাদের অসংখ্য কর্মীদের গ্রে’ফতার করা হয়েছে। তাদেরকে অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।

About admin

Check Also

আবু ত্ব-হার মায়ের কাছে ফোন দিয়ে মুক্তিপণ দাবি

ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান ১০ জুন থেকে নিখোঁজ। সঙ্গে রয়েছেন তার সফরসঙ্গী আব্দুল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *