Home / লাইফস্টাইল / সবাইকে চমকে দিয়ে মু’সলিম বিচারকের হিজাব পরিধান

সবাইকে চমকে দিয়ে মু’সলিম বিচারকের হিজাব পরিধান

আ’দালতে নতুন ডিজাইন করা হিজাব পরিধান করে সবাইকে চমকে দিয়েছেন দুজন ব্যারিস্টার। লন্ডনের ডায়টি স্ট্রিটের হিউম্যান রাইটস চেম্বারসের দুজন জুনিয়র ব্যারিস্টার আ’দালতে নতুন ডিজাইনের মানসম্মত হিজাব চালু করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) সাদা ও কালো রঙের নতুন ডিজাইন করা হিজাব চালু হয়।

মা’নবাধিকার চেম্বার ডুটি স্ট্রিট থেকে দুজন জুনিয়র ব্যারিস্টার একসাথে আ’দালতের জন্য হিজাব ডিজাইন করেছেন ও নিজেরা তা পরেছেন। নি’য়ন্ত্রণ ও অ’পরাধ বি’ষয়ক আইনজীবী কারলিয়া লিকারগো ও ফোজদারি আইনজীবী মারয়াম মির যৌথভাবে এবার আ’দালতের মু’সলিম না’রীদের হিজাব পরিধানের উদ্যোগ নেন।

এর আগে, মু’সলিম না’রী বিচারকরা আ’দালতে ‘বিধিসম্মত’ হিজাব পরিধানে নানা ধরনের বা’ধাবিপত্তির সম্মুখীন হতো। হিজাব পরিধানের অভ্যস্ত বিচারকরা প্রচলিত হিজাব আ’দালতের ভে’তর পরতে পারেন না। আর হিজাবের ধরন কেমন হবে এ ব্যাপারেও কোনো নির্দেশনা নেই।

২০০৬ সালে যুক্তরাজ্যের লিডস বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন পড়াকালে মারয়াম মির ও কারলিয়া লিগারগোর মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্প’র্ক তৈরি হয়। পরবর্তীতে মারয়াম হিজাব নিয়ে আ’দালতে সমস্যায় পড়ার কথা কারলিয়ার কাছে তুলে ধরেন। কারণ আ’দালতে পরার জন্য উপযুক্ত কোনো হিজাব তিনি খুঁজে পাচ্ছিলেন না।

লিগ্যাল চেক-কে এক সাক্ষাতকারে মারয়াম জানান, আমার হিজাব পরিধান অনেক বেশি ক’ষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়। কারণ কোর্টের হিজাবগুলো আরাম’দায়ক ছিল না। ফলে তা পরে থাকা স্বস্তিদায়ক ছিল না।

কারলিয়া বলেন, আ’দালতে হিজাব নিয়ে মারয়ামের সমস্যার কথা শুনে আমার কাছে তা সামান্য বি’ষয় বলে মনে হয়। কারণ সে একজন বুদ্ধিমতী ও কর্মতৎপর বিচারক। এখন হয়ত আকার-আকৃতি, রঙ ও নকশায় আ’দালতের উপযুক্ত কোনো হিজাব খুঁজে পেতে ব্যর্থ হবে।

তাই আমি নতুন ডিজাইনের হিজাব পরিধানের সি’দ্ধান্ত নেই। যা হিজাবি বিচারকদের জন্য পরার উপযুক্ত হবে। পাশাপাশি পোশাকের সাজসজ্জার স’ঙ্গেও পুরোপুরি মাননসই হবে। অবশেষে বাঁশের সিল্ক দিয়ে নতুন হিজাব তৈরি করা হয়। শীতকালে তা দে’হকে উষ্ণ রাখবে এবং গ্রীষ্মকালে ঠাণ্ডা রাখবে।

কারলিয়া জানান, যুক্তরাজ্যের আ’দালতে খুব বেশি হিজাবি বিচারক নেই। তবে ক্রাউন কোর্টে সাদা রঙের হিজাব দেখেছি এবং ম্যা’জিস্ট্রেটদের মধ্যে কালো রঙের হিজাব পরিধান করতে দেখেছি। তাই আমি উভ’য় রং একস’ঙ্গে করে একটি হিজাব তৈরির প্রস্তুতি নেই।

হিজাবি বিচারক হিসেবে নতুন ডিজাইনের হিজাব পরে নিজের অনুভূতিক জানান ব্যারিস্টার মারয়াম মির বলেন, পুরো বিশ্বের কাছে আমার বার্তা হলো, ‌বর্তমান সময়ে পেশাদার পৃথিবীকে সব শ্রেণীর মানুষকে নিয়ে উদযাপন করতে হবে। সাফল্যের জন্য আপনাকে আপোষ করতে হবে না।

আপনাকে দেখতে বা শুনতে কেমন লাগে তা নির্ধারণে অন্যের শরণাপন্ন হবেন না। নিজের কাছে সত্যবা’দী হোন এবং নিজের পরিচয়ে আত্মবিশ্বাসী হোন। সাফল্য আপনার কাছে এসে যাবে।

এদিকে, ২০২০ সালে মে মাসে যুক্তরাজ্যের প্রথম ডেপুটি ডিস্ট্রিক জজ হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করেন রাফিয়া আরশাদ।

About admin

Check Also

আবু ত্ব-হার মায়ের কাছে ফোন দিয়ে মুক্তিপণ দাবি

ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান ১০ জুন থেকে নিখোঁজ। সঙ্গে রয়েছেন তার সফরসঙ্গী আব্দুল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *