Home / লাইফস্টাইল / নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা

নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা

নিখোঁজ আলোচিত ইসলামি বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান তার রংপুরের বাসায় ফিরে এসেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। কোতোয়ালি থানার ওসি আবদুর রশিদ গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত ১০ জুন রংপুর থেকে ঢাকায় আসার পথে রাজধানীর গাবতলী এলাকা থেকে ইসলামি বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান নিখোঁজ হন। এছাড়াও তার সঙ্গে নিখোঁজ হয়েছেন আব্দুল মুহিত, মোহাম্মদ ফিরোজ ও গাড়িচালক আমির উদ্দীন।

ত্ব-হার নিখোঁজ হওয়ার তথ্য জানিয়ে দারুসসালাম এবং মিরপুর থানায় গেলে কোনো থানাই সাধারণ ডায়েরি বা মামলা গ্রহণ করেনি বলেও অভিযোগ করেছেন তার পরিবার। এ নিয়ে সর্বশেষ রংপুর সদর থানায় একটি জিডি করা হয়েছে।

নিখোঁজের আগে ঢাকা আসার সময় মাকে জড়িয়ে অঝোরে কেঁদেছিল আদনান
রংপুর থেকে ঢাকায় আসার সময় নিখোঁজ হয়েছেন দেশের আলোচিত ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান। ১০ জুন তার সাথে পরিবারের সব রকমের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার আগ মুহুর্তে জানিয়েছিলেন তাকে দু’টো মোটরসাইকেল থেকে অনুসরণ করা হচ্ছে।

ঢাকার উদ্দেশ্যে রংপুর ত্যাগের আগে নিজ বাড়িতে মাকে জড়িয়ে ধরে তিনি খুব কান্না করছিলেন। তখন সেজদায় পড়ে নিজের নিরাপত্তার জন্য তার মাকে দোয়া করতে বলেন আদনান।

তার মা আজেদা বেগম জানান, ঢাকায় গেলে সে নিরাপদে থাকবে, কিন্তু কোথায় থাকবে সে বিষয়ে বাড়ির কেউ জানাতে পারেননি। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার দিকে তিনি তার তিন অনুসারীসহ ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন। ১১ জুন (শুক্রবার) সাভারের একটি মসজিদে বক্তৃতা শেষ করে কিছুদিন ঢাকায় থাকার কথা ছিল তার।

তিনি আরও জানান, ঢাকায় যাওয়ার সময় হঠাৎ তাকে বুকে জড়িয়ে খুব কান্না করছিল ত্ব-হা, নামাজে সেজদায় পড়ে তার নিরাপত্তা ও নিরাপদে ফিরে আসার জন্য আল্লাহর কাছে দোয়াও করতে বলেছিল সে। এরপর ওই রাত থেকেই তার তিন সঙ্গীসহ নিখোঁজ তার ছেলে।

এ বিষয়ে রংপুর মহানগর পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার (কোতোয়ালি জোন) আলতাব হোসেন জানান, ত্ব-হা’র নিখোঁজের বিষয়ে থানায় জিডি করা হয়েছে। তার মা থানায় জিডিটি করেছেন। জিডির বিষয়ে তদন্ত চলছে।

About admin

Check Also

ত্ব-হা ফিরে আসায় আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করলেন ক্রিকেটার শুভ

নিখোঁজ আলোচিত ইসলামি বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনানের সন্ধান পাওয়ায় আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করলেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *